রায়পুরে অবশেষে কুখ্যাত দুলাল আটক! আটকে রেখে গণধর্ষণের সহযোগিতা

লক্ষ্মীপুরে গৃহ পরিচালিকা হিসেবে চাকুরীর প্রলোভনে ৮০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেয়ার পর এক কিশোরীকে রাতভর সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আজ বুধবার (০৯ মার্চ) বেলা ১১ টার দিকে ভিকটিম ওই কিশোরীকে ঘটনাস্থল এলাকা থেকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রায়পুর পৌর শহরের ১নং ওয়ার্ডের পতিতাবৃত্তির সাথে দীর্ঘদিন ধরে জড়িত দুলালের বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

ভিকটিম, পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রায়পুর উপজেলার চর আবাবিল এলাকার মৃত মনছুর আহমেদের কন্যা অসহায় হয়ে গৃহ পরিচালিকা হিসেবে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করে। এ সুযোগে স্থানীয় বখাটে যুবক জাকির তাকে চাকুরী দেয়ার কথা বলে গত রবিবার রায়পুর পৌর শহরের বাসিন্দা ও স্থানীয় ব্যবসায়ী (মুদি দোকানদার) দুলালের বাসায় নিয়ে আসে। এসময় বখাটে যুবক রাজিব দুলালের কাছে ওই কিশোরীকে ৮০ হাজার টাকায় বিক্রি করে হস্তান্তর করে চলে যায়।

স্থানীয় লোকজন জানান, দুলাল দীর্ঘদিন যাবৎ নারীদের তার বাড়িতে এনে অপকর্ম করতো। এলাকার প্রভাবশালীদের সহযোগিতায় এই অপকর্ম তার নিয়মিত চলতো।

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ওই কিশোরীকে দুলাল ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগমের সহায়তায় রাতভর ৪-৫ জন যুবক পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে পুলিশ গোপন সংবাদ পেয়ে ভিকটিমকে উদ্ধার করে। এসময় দুলাল ও তার স্ত্রীকে আটক করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মং থোয়াই চাকমা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ভিকটিমকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। ধর্ষণে জড়িত থাকার অভিযোগে দুইজনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনার তদন্তসহ পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান তিনি।

ডব্লিউজি/এমএ

Leave a Reply