রোদে পুড়েছে ত্বক

চৈত্রের রোদে আঁচ বাড়ছে প্রতিদিন। যদিও ফাল্গুনের শেষ তারপরেও কয়েকদিন বাদে যে চৈত্র তার স্বরূপ ধারণ করবে তা এখনই জানান দিচ্ছে। সূর্যের তাপ বাড়ছে, কড়া রোদের দাপটে ত্বকে পড়ছে ট্যান।

ত্বক যখন রোদে উন্মুক্ত ও অরক্ষিত অবস্থায় থাকে তখন অতিবেগুনি রশ্মি (এ এবং বি) এর কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। অতিবেগুনি রশ্মি ত্বকের দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতি করতে পারে। এসব ক্ষতির মধ্যে অকালে বুড়িয়ে যাওয়া, এমনকি ত্বকের ক্যানসার পর্যন্ত হতে পারে। সূর্যের তাপ থেকে চেহারাকে বাঁচাতে সানস্ক্রিন ব্যবহার করলেও অনেক সময় চেহারা রোদে পুড়ে কালো হয়ে যায়। কিছু ঘরোয়া উপায়ে রোদে পুড়ে যাওয়া ত্বকের যত্ন নিতে পারেন।

টমেটো প্রাকৃতিক ট্যান প্রতিরোধক। রোদ থেকে ফিরে টমেটো কেটে রোদে পোড়া অংশে ভালো করে ঘষুন। কিছুক্ষন রেখে শুকিয়ে গেলে বরফ ঠাণ্ডা পানিতে মুখ ধুয়ে নিন।

গোসলের আগে পানিতে কয়েক ফোঁটা গোলাপ জল মিশিয়ে নেবেন। সানবার্ন বা রোদে পোড়াভাব দূর করতে দারুণ কাজ করে এটি। আর যদি তাজা গোলাপের পাপড়ি বেটে রস লাগাতে পারেন তাহলে উপকার বেশি পাবেন।

অ্যালোভেরা আজকাল বেশ সহজলভ্য। অ্যালোভেরা জেল ও বরফের মিশ্রণে ত্বকের আরাম হয়। অ্যালোভেরা জেল ও পানি একসঙ্গে মিশিয়ে আইস কিউব তৈরি করে নেবেন। রোদে ত্বক পুড়ে গেলে সেই অংশে ধীরে ধীরে ঘষতে থাকুন। নিয়মিত এই অভ্যাসে ত্বকের রোদে পোড়া অংশে ঔজ্জ্বল্য ফিরে আসবে।
ট্যান সরাতে কার্যকরী কালো চায়ের ব্যাগ। চা তৈরি হয়ে গেলে সেই ব্যাগ ফ্রিজে রেখে দেবেন। ঠাণ্ডা টি ব্যাগ চেপে চেপে লাগিয়ে নিন ত্বকের পুড়ে যাওয়া অংশে। ত্বকের জ্বালাপোড়া কমে নরম তো হবেই, সঙ্গে ট্যানও সরবে দ্রুত।

ডব্লিউজি/এমএ

Leave a Reply